Add to favourites
News Local and Global in your language
22nd of July 2018

International



'হিন্দু মিল' তুলে দিয়ে ভিএইচপির তোপের মুখে এমিরেটস

শুভজ্যোতি ঘোষ বিবিসি বাংলা, দিল্লি

বিশ্বের বৃহত্তম এয়ারলাইন সংস্থাগুলোর একটি এমিরেটস তাদের ইন-ফ্লাইট মেনু থেকে 'হিন্দু খাবারে'র অপশন তুলে নেওয়ার পর ভারতের হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলির তোপের মুখে পড়েছে।

দুবাই-ভিত্তিক এমিরেটস এয়ারলাইন মঙ্গলবার একটি বিবৃতি দিয়ে তাদের বিমানবহর থেকে এই 'হিন্দু মিল' প্রত্যাহার করার কথা ঘোষণা করে।

সেই সঙ্গেই অবশ্য ওই বিবৃতিতে তারা জানিয়েছিল, এমিরেটসের হিন্দু বিমানযাত্রীরা অন্য নানা ধরনের আমিষ ও নিরামিষ অপশন থেকে তাদের পছন্দ অনুযায়ী খাবার বেছে নিতে পারবেন।

কিন্তু ভারতের কট্টরপন্থী হিন্দু সংগঠন বিশ্ব হিন্দু পরিষদ মনে করছে, এমিরেটসের এই সিদ্ধান্ত কোটি কোটি হিন্দুর জন্য 'চরম অপমানজনক' এবং হিন্দুরা কিছুতেই এই সিদ্ধান্তকে ভালভাবে নেবেন না।

পরিষদের শীর্ষস্থানীয় নেতা ও সাধারণ সম্পাদক ড: সুরেন্দ্র জৈন এদিন বিবিসি বাংলাকে বলেন, "বিভিন্ন এয়ারলাইন এখন যেখানে তাদের খাবারে হিন্দু ও জৈন খাবারের অপশন যোগ করছে, তখন এমিরেটস কীভাবে এই সিদ্ধান্ত নিল সেটাই আমাদের মাথায় ঢুকছে না!"

"ব্যবসায়িক দৃষ্টিতেও যেমন এই সিদ্ধান্ত তাদের জন্য হঠকারী হবে, তেমনি নিরামিষাশী হিন্দুদের জন্যও এটা একটা ঘোর অন্যায়। আমি নিশ্চিত এর পর অনেক হিন্দুই এমিরেটসকে এড়িয়ে চলবেন", বলছিলেন তিনি।

এমিরেটস অবশ্য দাবি করছে, যাত্রীদের কাছ থেকে ফিডব্যাক ও আপটেক নিয়ে তার ভিত্তিতে তারা তাদের বিমানে প্রাপ্ত পণ্য ও পরিষেবাগুলো নিয়মিত পর্যালোচনা করে থাকে - আর ঠিক সেভাবেই হিন্দু মিল তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

'হিন্দু মিল' ছিল বস্তুত হিন্দু ধর্মাবলম্বী সেই সব যাত্রীর জন্য যাদের মাছ-মুরগী-ল্যাম্ব-ডিম বা দুগ্ধজাত খাবার খেতে আপত্তি নেই। তবে সেই মিলে কোনও মতেই বিফ বা গোমাংস যেন না-থাকে, সেটাও নিশ্চিত করা হত।

এমিরেটসের ওয়েবসাইটে গিয়ে দেখা যাচ্ছে, তাদের পরিমার্জিত মেনুতে এখন 'নিরামিষাশী জৈন মিল', 'ভারতীয় নিরামিষাশী মিল', 'কোশার মিল', বা 'নন-বিফ আমিষ মিলে'র মতো নানা অপশন পাওয়া যাবে।

এমিরেটস এখন ভারতের ন'টি প্রধান শহরের বিমানবন্দর থেকে বছরে প্রায় ষাট লক্ষ আন্তর্জাতিক যাত্রী পরিবহন করে থাকে।

ভারত থেকে এমিরেটসের আন্তর্জাতিক যাত্রীর সংখ্যা ভারতের ন্যাশনাল ফ্ল্যাগ ক্যারিয়ার এয়ার ইন্ডিয়ার যাত্রীসংখ্যার চেয়েও অনেক বেশি।

"এই যাত্রীদের অধিকাংশই নিশ্চয় হিন্দু - কিন্তু তাদের বেশির ভাগই অনলাইন চেক-ইনের সময় হিন্দু মিল বেছে নিচ্ছেন না বলেই নিশ্চয় এমিরেটস ওই অপশনটা বাদ দিচ্ছে। এ নিয়ে এত হইচই কেন সেটাই বুঝতে পারছি না", বিবিসিকে বলছিলেন ভারতের নামী এভিয়েশন বিশেষজ্ঞ কপিল কাউল।

মি. কাউল আরও বলছেন, "কোনও এয়ারলাইনই আগ বাড়িয়ে নিজেদের পায়ে কুড়াল মারতে চাইবে না। আমি নিশ্চিত এমিরেটস সব দিক খতিয়ে দেখেই মনে করেছে তাদের মেনুতে হিন্দু মিল রাখার কোনও যুক্তি নেই!

বিশ্ব হিন্দু পরিষেদের নেতা সুরেন্দ্র জৈন অবশ্য এই যুক্তির সঙ্গে আদৌ একমত নন।

বরং তিনি বলছেন, "আমি এমিরেটস অনুরোধকে করব অবিলম্বে এই হিন্দু-বিরোধী সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করা হোক। আর যদি তারা তা না-করেন, বিশ্বের কোটি কোটি হিন্দু যাতে এমিরেটসকে বয়কট করেন আমরা সেই ডাক দেব!"

বিবিসি বাংলায় আরো পড়ুন:

গুহার ভেতর কী করে টিকে থাকবে কিশোর ফুটবলাররা?

যে কারণে আসামের ৯০ লক্ষ মুসলমান আতঙ্কে

নাটকের অভিযোগের জবাবে যা বললেন নেইমার

ব্রাজিলের বিরুদ্ধে কেমন করবে বেলজিয়াম?

শিশুকে কীভাবে 'বুকের দুধ খাওয়ালেন' বাবা

Read More




Leave A Comment

More News

BBCBangla.com |

বিশ্ব -

AL JAZEERA ENGLISH (AJE)

China Post Online -

bdnews24.com - Home

BBC News - Asia

FOX News

www.washingtontimes.com

Breitbart News

Reuters: World News

Disclaimer and Notice:WorldProNews.com is not the owner of these news or any information published on this site.